৩শ’ বাংলাদেশীকে নিয়ে সৌদি পৌছালো আরো ১টি ফ্লাইট

প্রায় তিনশো বাংলাদেশীকে নিয়ে সৌদি পৌছালো সৌদি এয়ারলাইন্সের ২য় ফ্লাইট।গতকাল শুক্রবার রাতে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হতে যাত্রা করে সৌদি পৌছেছে ফ্লাইটটি।সৌদি আরব থেকে ছুটিতে আসার পর করোনার কারণে ফ্লাইট বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বাংলাদেশে আটকা পড়েন কয়েক হাজার সৌদি প্রবাসী।

তবে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালু করার পর বাংলাদেশিদের সৌদি আরবে কর্মস্থলে ফেরার সুযোগ সৃষ্টি হয়।কিন্তু ভিসার মেয়াদ, ফ্লাইট সংকট থাকায় কিছুটা জটিলতায় পড়তে হচ্ছে প্রবাসীদের। এদিকে,সৌদি আরব প্রবাসীদের টিকিট বিক্রিতে বিশৃঙ্খলার জেরে রাজধানীর সোনারগাঁ হোটেলের সামনে প্রধান সড়ক অবরোধ করেছে টিকিট প্রত্যাশীরা।

শনিবার সকাল পৌঁনে দশটার দিকে রাস্তা বন্ধ করে কারওয়ান বাজার এলাকায় সোনারগাঁ মোড়ে অবস্থান নেয় তারা।এর আগে সকাল আটটা নাগাদ কারওয়ান বাজারের হোটেল সোনারগাঁয়ে সৌদি এয়ারলাইন্স কার্যালয়ে তৃতীয় দিনের মত টিকিট বিক্রি শুরু করেছে।পূর্ব নির্ধারিত ৩৫০টির বাইরে আরো ২শ টিকিট বেশি দেয়া হবে বলে জানিয়েছে সৌদি এয়ারলাইন্স।

তবে এর বাইরে কয়েক হাজার সৌদি প্রবাসী টিকেটের জন্য ভীড় করছেন অফিসের সামনে।একপর্যায়ে বিক্ষুব্ধ টিকিট প্রত্যাশীরা আটকে দেয় সড়ক।বন্ধ রয়েছে এই এলাকায় যান চলাচল। বিপাকে পড়েন অফিসগামী যএীরা।

আরো পড়ুন…বাংলাদেশে করোনার ভ্যাকসিন ট্রায়ালে এখনও দৃশ্যত কোন প্রস্তুতি নেই।উল্টো প্রাথমিকভাবে যে ৭টি হাসপাতালকে কোভিড ট্রায়ালের জন্য নির্ধারণ করা হয়েছিলো, সে তালিকার দুটিকে সম্প্রতি নন কোভিড হাসপাতাল হিসেবে ঘোষণা করেছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।এতে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সংশয়ে আছে কোভিড ভ্যাকসিন ট্রায়ালে স্বাস্থ্যকর্মীদের তালিকা পাঠানো নিয়ে। তবে অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, রোগি না পাওয়ায় কোভিড হাসপাতালগুলোকে বাতিল করা হচ্ছে।গত মাসে প্রথমবারের মতো বিশ্বে করোনা ভ্যাকসিনের সফল ট্রায়াল ঘোষণার পর থেকেই বাংলাদেশের অপেক্ষা।ভ্যাকসিন কুটনীতির নানা সমীকরণ ডিঙ্গিয়ে চলতি মাসের শুরুতে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের ঘোষণা দেয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।যে মাইনাস তাপমাত্রায় করোনার ভ্যাকসিন রাখতে হয়, তার প্রস্তুতি নেই।