‘২০১ গম্বুজ মসজিদে বেপর্দা অবস্থায় মহিলাদের প্রবেশ নিষেধ’

এশিয়া মহাদেশের সবচেয়ে বড় মসজিদ টাঙ্গাইলের গোপালপুর উপজেলার দক্ষিণ পাথালিয়ায় অবস্থিত ২০১ গম্বুজ মসজিদে বেপর্দা অবস্থায় মহিলাদের প্রবেশ নিষেধ করেছে মসজিদ পরিচলানা কর্তৃপক্ষ। সম্প্রতি মসজিদে অনেক মহিলা বেপর্দা হয়ে ভেতরে প্রবেশ ও ছবি তোলা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ গণমাধ্যম ফেসবুকে ব্যাপক ভাইরাল হয় এবং তা বিভিন্ন মহলে সমাচেলনার ঝড় ওঠে।

এরপর বেপর্দা অবস্থায় মহিলাদের প্রবেশ নিষেধের সিদ্ধান্ত নেয় কর্তৃপক্ষ। এ নোটিশে বলা হয়েছে, সর্বসাধরণদের অবগতির জন্য জানানো যাইতেছে যে, আল্লাহর ঘর মসজিদ। পবিত্রতা রক্ষার্থে মহিলাদের বেপর্দা অবস্থায় প্রবেশ নিষেধ।কর্তৃপক্ষ সূত্র জানা যায়, গত কয়েক বছর ধরে মসজিদ নির্মাণধীন সময় থেকেই পরিবার-পরিজন নিয়ে দেশ-বিদেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে প্রতিদিন শতশত দর্শনার্থীরা মসজিদ দেখতে আসছেন।

এসময় অনেক মহিলারা বের্পদাভাবে মসজিদে প্রবেশ করে থাকেন ও ছবি ওঠে। মসজিদের পবিত্রতা রক্ষায় গত শুক্রবার (১৪ আগস্ট) একটি নোটিশ টাঙানো হয়েছে।এ বিষয়ে ২০১ গম্বুজ মসজিদের প্রতিষ্ঠাতা ও রফিকুল ইসলাম কল্যাণ ট্রাস্টের সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা মো. রফিকুল ইসলামকে মুঠোফোনে একাধিবার কল করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি।

আরো পড়ুন…কমে গেল উপসচিবদের গাড়ি সুবিধা। প্রাধিকারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হিসেবে তিন বছর পর গাড়ি সুবিধা পাবেন সরকারের উপসচিবরা। আগে কর্মকর্তারা উপসচিব পদে পদোন্নতির পরই গাড়ি কিনতে সুদমুক্ত ঋণ পেলেও এখন তা পাওয়া যাবে এই পদে তিন বছর কাজ করার পর। এমন নিয়ম রেখে ‘প্রাধিকারপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তাদের সুদমুক্ত ঋণ এবং গাড়ি সেবা নগদায়ন নীতিমালা ২০২০ (সংশোধিত)’ জারি করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। বুধবার (১৯ আগস্ট) সংশোধিত নীতিমালা জারি করা হয়, একই সঙ্গে এটি গেজেট আকারে প্রকাশিত হয়েছে।

সংশোধিত নীতিমালা অনুযায়ী, গাড়ি সুবিধার প্রাধিকারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বলতে বোঝাবে- সুপিরিয়র সিলেকশন বোর্ডের (এসএসবি) সুপারিশক্রমে সরকারের উপসচিব পদে পদোন্নতিপ্রাপ্ত হয়ে কমপক্ষে তিন বছর অতিক্রম করেছেন এমন কর্মকর্তা, সরকারের যুগ্মসচিব, অতিরিক্ত সচিব, সচিব/সিনিয়র সচিব। আগে প্রাধিকারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বলতে বোঝাত সরকারের উপসচিব, যুগ্মসচিব, অতিরিক্ত সচিব, সচিব/সিনিয়র সচিব।সংশোধিত নীতিমালায় আরও বলা হয়েছে, অধুনালুপ্ত বিসিএস (ইকোনমিক) ক্যাডারের যুগ্ম-প্রধান বা এর উপরের কর্মকর্তা, সংসদ বিষয়ক বিভাগের যুগ্মসচিব (ড্রাফটিং) থেকে উপরের পর্যায়ের কর্মকর্তা যারা সরকারি যানবাহন অধিদফতর থেকে সার্বক্ষণিক ব্যবহারের জন্য গাড়ি সুবিধাপ্রাপ্ত।