হিরো আলমকে মিষ্টি খাওয়ালেন নির্বাচন কর্মকর্তা

বগুড়ার দুই আসনে উপনির্বাচনে অংশ দেওয়া স্বতন্ত্র প্রার্থী হিরো আলমকে মিষ্টি খাইয়েছেন জেলা জ্যেষ্ঠ নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার মাহমুদ হাসান। আজ বৃহস্পতিবার (২ ফেব্রুয়ারি) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে জেলা নির্বাচন কার্যালয়ে গেলে হিরো আলমকে মিষ্টি খাওয়ান তিনি।

এর আগে, গতকাল বুধবার বগুড়া-৪ (কাহালু-নন্দীগ্রাম) এবং বগুড়া-৬ আসনের উপনির্বাচন হয়। নির্বাচনে দুটি আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে হেরে যান হিরো আলম। ফল ঘোষণার পর হিরো আলম দাবি করে বলেন, ভোট চুরি না হলেও ফলাফল ঘোষণার সময় চুরি করা হয়েছে। ষড়যন্ত্র করে হারিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ তার।

পরবর্তিতে ভোটের ফলাফলের কপি আনতে বৃহস্পতিবার বিকেল তিনটার দিকে জেলা নির্বাচন কার্যালয়ে যান হিরো আলম। তখন জেলা জ্যেষ্ঠ নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার মাহমুদ হাসান তাকে মিষ্টিমুখ করান।এ সময় সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা জাকির হোসেন উপস্থিত ছিলেন। নির্বাচনের ফলাফলের কপি পাওয়ার পর উপস্থিত সাংবাদিকদের হিরো আলম বলেন, ‘এই ফলাফলের কপি নিয়ে আমি হাইকোর্টে রিট করব।’

হিরো আলম আরও জানান, ‘এই সরকারের সময়ে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়। এই পরিস্থিতি থাকলে আমি আর হাইকোর্টেও যাব না এবং আমি আর কোনো নির্বাচনে অংশগ্রহণ করব না।’