হাসপাতালের সামনের সাত ফার্মেসিতে বিপুল পরিমাণ মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ

বরিশাল নগরীতে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ অনুমোদনহীন এবং মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ জব্দ করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় সাত ফার্মেসিকে এক লাখ ৫৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।মঙ্গলবার (০৬ অক্টোবর) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত বান্দ রোডের শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সামনে এবং আশপাশ এলাকায় এ অভিযান চালানো হয়।

অভিযানে নেতৃত্ব দেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিরূপম মজুমদার। তাকে সহায়তা করেন ওষুধ প্রশাসন ও র‌্যাব-৮ এর সদস্যরা।জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিরূপম মজুমদার বলেন, অনুমোদনহীন এবং মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ বিক্রি করা হচ্ছে- এমন সংবাদ পেয়ে নগরীর বান্দ রোডসহ আশপাশ এলাকায় অভিযান চালানো হয়।

এ সময় শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সামনের সাত ফার্মেসি থেকে বিপুল পরিমাণ স্যাম্পল, মেয়াদোত্তীর্ণ ও অনুমোদনহীন ওষুধ জব্দ করা হয়।অনুমোদনহীন ও মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ মজুত এবং বিক্রির দায়ে কাজী মেডিসিন হাউসকে ২০ হাজার টাকা, আহসান ব্রাদার্সকে ১৫ হাজার, তুহিন মেডিকেলকে ১০ হাজার, ওষুধ বিতানকে ১৫ হাজার, লিমন মেডিকেলকে ৪০ হাজার,

শাহীন মেডিকেলকে ২৫ হাজার এবং খান মেডিকেল হাউসকে ৩০ হাজার টাকাসহ মোট এক লাখ ৫৫ হজার টাকা জরিমানা করা হয়।ম্যাজিস্ট্রেট নিরূপম মজুমদার আরও বলেন, বরিশালে নকল ও অনুমোদনহীন ওষুধের বিস্তার রোধে জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমানের নির্দেশে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।তিনি বলেন, অভিযানের পর জব্দ করা বিপুল পরিমাণ অনুমোদনহীন এবং মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ ধ্বংস করা হয়। জনস্বার্থে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।