হংকংয়ে ৬ হাজার কর্মী পাঠাচ্ছে সরকার, বেতন মাসিক ৫১ হাজার টাকা

প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী প্রতি উপজেলা থেকে গড়ে ১ হাজার কর্মীর বৈদেশিক কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় কাজ করছে। তারই অংশ হিসেবে সরকারিভাবে বোয়েসেলের (বাংলাদেশ ওভারসিজ এমপ্লয়মেন্ট অ্যান্ড সার্ভিসেস লিমিটেড) মাধ্যমে হংকংয়ে ৬ হাজার নারী (ফিমেল) ডোমেস্টিক হেলপার পাঠানো হবে।

হংকংয়ে নারী গৃহসহায়ক হিসেবে ক্ষুদ্র নৃ-তাত্ত্বিক গোষ্ঠী (উপজাতীয়)’র মেয়েদের যথেষ্ট চাহিদা রয়েছে। এ ছাড়া গৃহসহায়ক কাজে পরিপূর্ণ ইচ্ছা ও ধৈর্য আছে এমন সাধারণ মেয়েরাও আবেদন করতে পারবেন। পিআইডি সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। আগ্রহী প্রার্থীদের ন্যূনতম অষ্টম বা সমমান শ্রেণি পাস এবং বয়স ২০-৩৫ বছর হতে হবে।

প্রাথমিকভাবে বাছাই করা প্রার্থীদের ৩-৪ মাসের হাউস কিপিং প্রশিক্ষণ সরকারিভাবে বোয়েসেলের ব্যবস্থাপনায় দেওয়া হবে। পাশাপাশি কর্মীদের ক্যান্টনিজ ভাষার ওপরও বিশেষ প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। চাহিদাপত্র ও চুক্তির শর্ত মোতাবেক প্রত্যেক কর্মীকে ৩-৪ মাসের হাউস কিপিং প্রশিক্ষণ, হংকংয়ের ক্যান্টনিজ ভাষার প্রশিক্ষণ, বিমান ভাড়া ও বোয়েসেলের সার্ভিস চার্জসহ মোট ১ লাখ ৬৫ হাজার টাকা বহন করতে হবে।

প্রশিক্ষিত কর্মী হংকংয়ে নিয়োগপ্রাপ্ত হলে তাদের মাসিক বেতন হবে ৫১ হাজার টাকা। এ ছাড়া বাসস্থান, আহার ও চিকিৎসা খরচ নিয়োগকারী বহন করবে। প্রার্থী প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক থেকে শর্ত সাপেক্ষে ঋণ নিতে পারবেন। আগ্রহী প্রার্থীরা hongkongcvboesl@gmail.com ই-মেইলে আবেদন পাঠাতে পারবেন। বায়োডাটার নমুনা বোয়েসেলের ওয়েবসাইটে (www.boesl.gov.bd) পাওয়া যাবে।

প্রয়োজনীয় সহযোগিতার জন্য প্রত্যেক জেলার জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিসে যোগাযোগ করা যেতে পারে।চট্টগ্রাম জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিসের উপপরিচালক (চলতি দায়িত্ব) মোহাম্মদ জহিরুল আলম মজুমদার বাংলানিউজকে জানান, হংকংয়ে ফিমেল ডোমেস্টিক হেলপার পাঠানোর লক্ষ্যে আমরা প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছি। আগ্রহী নারীদের নির্দিষ্ট ইমেইলে আবেদন পাঠাতে হবে। বায়োডাটার নমুনা বোয়েসেলের ওয়েবসাইটে রয়েছে। সুত্র:বাংলানিউজ