সচিবালয় অভিমুখী তাজরিন শ্রমিকদের মিছিলে পুলিশের বাধা

তাজরিন ফ্যাশন লিমিটেডের শ্রমিকদের মিছিল বাধা দিয়েছে পুলিশ। শ্রম প্রতিমন্ত্রীর কাছে তিনটি দাবি জানাতে সচিবালয় রওনা হওয়া মিছিলটি আটকে দেয়।

রবিবার (২২ নভেম্বর) দুপুর ১২টায় সচিবালয় ও প্রেসক্লাবের মধ্যে বাধাপ্রাপ্ত হয় তাজরিন শ্রমিকরা। এসময় সেখানে তারা সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করেন। এ সময় তাঁরা প্ল্যাকার্ড হাতে নিয়ে বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকেন। পরে তিন সদস্যের প্রতিনিধি পাঠিয়ে তাঁদের দাবি তুলে ধরেন।

সংক্ষিপ্ত সমাবেশে তাজরিন ফ্যাশনের শ্রমিক জরিনা বেগম বলেন, দেশের মধ্যে ১০ লাখ রোহিঙ্গা নাগরিকের স্থান হয়, তাদের খাবারের ব্যবস্থা হয়। আমরা স্বাধীন দেশের নাগরিক অথচ আমাদের মাতৃভূমিতে আমরা নিরুপায় হয়ে আছি।আমাদের বেতন-ভাতা বিষয়ে কোনো আলোচনা হচ্ছে না, না খেয়ে থাকতে হচ্ছে আমাদের। আজ আমাদের দাবি নিয়ে শ্রম প্রতিমন্ত্রীর কাছে পেশ করতে চাই। সরকারের সিদ্ধান্ত আমরা শুনতে চাই, কী হবে আমাদের সেটা জানতে চাই।

জরিনা বেগম আরও বলেন, আমরা আজ ৬৬ দিন জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে, আমাদের যৌক্তিক দাবিতে অবস্থান করছি। এ সময়ের মধ্যে আমাদের অনেকেই অসুস্থ হয়ে পড়েছে, আমাদের সন্তানরা রাস্তায় পড়ে আছে। আমাদের ন্যায্য পাওনা বিষয়ে কোনো আশ্বাস পাইনি।

শ্রমিকরা যে তিন দাবি তুলে ধরেছেন সেগুলো হলো শ্রম আইনের ক্ষতিপূরণের ধারার বদল সাপেক্ষে সব আহত শ্রমিকদের জন্য সম্মানজনক ক্ষতিপূরণের ব্যবস্থা করতে হবে; সব আহত শ্রমিককে সম্মানজনক ও বাস্তবসম্মত পুনর্বাসনের ব্যবস্থা নিতে হবে এবং আহত শ্রমিকদের জন্য দীর্ঘমেয়াদি সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করতে হবে।