শীতের আগেই ঘূর্ণিঝড়ের আশঙ্কা, আজই পরিণত হতে পারে নিম্নচাপে

দেশের বিভিন্ন জায়গায় রোদ উঠেছে। মেঘযুক্ত ভাব অনেকটাই কেটে গেছে। শনিবার দুপুরের পর দেখা মেলেনি বৃষ্টির। তবে এরই মধ্যে আবারো সাগরে দানা বেঁধেছে লঘুচাপ। যা রোববারের মধ্যেই নিম্নচাপে পরিণত হতে পারে। এমনকি ঘূর্ণিঝড়েও রূপ নিতে পারে।বাংলাদেশের আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, লঘুচাপটি রোববারের মধ্যে নিম্নচাপে পরিণত হবে।

এটি বুধবারের মধ্যে গভীর নিম্নচাপ বা ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়ে ভারতের অন্ধ্র উপকূলে আঘাত হানতে পারে।এর বর্ধিতাংশের প্রভাবে বাংলাদেশে বুধবার থেকে আবারও বৃষ্টি শুরু হতে পারে যা দুই থেকে তিন দিন স্থায়ী হবে। এদিকে ভারতের আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, লঘুচাপের প্রভাবে বাংলাদেশ ও ভারতের পশ্চিমবঙ্গে আবারও আকাশ মেঘলা হয়ে উঠতে পারে।

সেই সঙ্গে কোথাও কোথাও হবে বৃষ্টি।তবে এটি ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হলেও বাংলাদেশের খুব বেশি ভয়ের আশংকা নেই। কারণ এটি বাংলাদেশ উপকূল থেকে বেশ দূরে অবস্থান করছে। এর গতিমুখ ভারতের অন্ধ্র উপকূলের দিকে।আবহাওয়ার আগামী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাষে বলা হয়েছে, দক্ষিণ বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়েছে।

উপমহাদেশীয় উচ্চ চাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ বিহার ও তৎসংলগ্ন এলাকা পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে।অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে।রোববার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় ১১ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। শনিবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে চট্টগ্রামে ৩১ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস।