শিশুকে আ’টকে গৃহব’ধুকে দিয়ে দে’হ ব্য’বসা, যুবকের ফেসবুকে পোস্টে উ’দ্ধার

রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া হতে ৩ মাসের শিশুপুত্র সহ পা’চার হওয়া গৃহ’বধুকে (২১) বৃহস্পতিবার (২৭ আগস্ট) দিনগত গভীর রাতে ময়মনসিংহ যৌ’নপ’ল্লী হতে উ’দ্ধার করেছে গোয়ালন্দ ঘাট থানা পুলিশ।পা’চার’কারীর একটি চ’ক্র গৃহবধুকে ওই পল্লীর আশা বাড়ীওয়ালীর কাছে বিক্রি করে দেয়। সে শিশুটিকে মায়ের কাছ থেকে অন্যত্র আ’টকে রেখে জোর’পুর্বক ওই গৃহ’বধুকে দিয়ে দে’হ ব্য’বসা করাতো। পুলিশ ওই বাড়িওয়ালীকে গ্রে’ফতার করেছে।

এ ঘটনায় গোয়ালন্দ ঘাট থানায় আশা বাড়িওয়ালীকে প্রধান এবং অ’জ্ঞাত আরো কয়েকজনকে আ’সামী করে গোয়ালন্দ ঘাট থানায় মা’নব পা’চার প্রতিরোধ ও দমন আ’ইনে মা’মলা করা হয়েছে। আ’সামীকে রাজবাড়ীর আ’দালতের মাধ্যমে জে’ল হাজতে এবং উদ্ধার হওয়া মা ও শিশু সন্তানকে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

গ্রেফ’তার’কৃত আশা বাড়িওয়ালী শরিয়তপুর জেলার ভেদরগঞ্জ উপজেলার নারায়ণপুর গ্রামের সালাম বেপারীর মেয়ে। তার স্বামী ওই গ্রামেরই মৃত জাহাঙ্গীর আলম।শনিবার দুুপুরে রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান, পিপিএম (বার) তার কাযার্লয়ের কনফারেন্স রুমে এ বিষয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে ঘটনার বিস্তারিত তুলে ধরেন। পুলিশ সুপার জানান, গত ১৩ জুলাই ওই গৃহবধু সাংসারিক অ’শান্তির দরুন কাজের উদ্যেশ্যে ঢাকার যাওয়ার জন্য স্বামীর বাড়ী থেকে বের হন।

এরপর পাটুরিয়া ঘাটে আসার পর তিনি পা’চার’কারী চক্রের দুই পুরুষ সদস্যের খ’প্পরে পড়েন। তারা গৃহবধুুর সাথে বোন পাতিয়ে তাকে ঢাকায় ভালো চাকরী দেয়ার কথা বলে সাভার হেমায়েতপুরে নিয়ে যায়।পরে সেখান থেকে ময়মনসিংহ যৌ’নপ’ল্লীতে নিয়ে তাকে আশা বাড়িওয়ালীর কাছে বিক্রি করে দেয়। বাড়িওয়ালী গৃহবধুর সাথে থাকা শিশুপুত্রকে জো’র করে তার মায়ের থেকে বিচ্ছিন্ন করে একটি বস্তিতে নিয়ে রাখে। সেই সাথে জোর করে ও নানা ভয়’ভীতি দেখিয়ে ওই গৃহবধুকে দিয়ে জোড় করে যৌ’ন ব্যবসা করাতে থাকে।

এ দিকে কয়েকদিন আগে ওই গৃহবধুর কাছে খ’দ্দের হিসেবে যাওয়া এক যুবকের কাছে আ’কুতি জানিয়ে তার দুর্দ’শার কথা এবং তার নাম ঠিকানা জানালে ওই যুবক ময়মনসিংহের একটি ফেসবুক গ্রুপে বিষয়টি তুলে ধরে এবং তার উ’দ্ধারের বিষয়ে সহযোগীতা কামনা করেন।গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি আশিকুর রহমান দীর্ঘদিন ময়মনসিংহে চাকুরী করার সুবাদে তার পূর্ব পরিচিত ওই গ্রুপের এক সদস্য বিষয়টি গত বৃহস্পতিবার তাকে অবগত করেন।

এরপর ওসি আশিকুর রহমান বৃহস্পতিবার দুপুরে গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি (তদন্ত) মোহাম্মাদ আব্দুল্লাহ আল তায়াবীরের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল ময়মনসিংহে পাঠান। তারা ময়মনসিংহের যৌ’নপ’ল্লীতে অভি’যান চালিয়ে গৃহবধুকে উ’দ্ধার ও বাড়িওয়ালী আশাকে আ’টক করে। এরপর বাড়িওয়ালীর দেয়া তথ্যানুযায়ী ময়মনসিংহের একটি বস্তি থেকে গৃহ’বধুর শিশুপুত্রকে উ’দ্ধার করে শুক্রবার ভোরে গোয়া’লন্দ থানায় ফিরে আসেন।

প্রেস কনফারেন্সে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, (রাজবাড়ীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. সালাহ উদ্দিন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) ফজলুল করিম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) শেখ শরিফ উজ জামান, সহকারী পুলিশ সুপার (পাংশা সার্কেল) লাবিব আব্দুল্লাহ, ডিআইও-১ সাইদুর রহমান, গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি আশিকুর রহমান, ওসি (তদন্ত) মোহাম্মাদ আব্দুল্লাহ আল তায়াবীর সহ প্রমূখ। প্রেস কনফারেন্সে জেলা ও গোয়ালন্দ উপজেলায় কর্মরত সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।