রোগ ধরা পড়েছে নায়ক ফারুকের

অভিনেতা ও ঢাকা-১৭ আসনের সংসদ সদস্য ফারুক টিবি রোগে আক্রান্ত। গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় তাকে সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সেখানে চিকিৎসা চলছে তার। নায়ক ফারুক নিজেই রবিবার (২৮ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় এ কথা জানান।সিঙ্গাপুরে এ অভিনেতার সঙ্গে গেছেন তার স্ত্রী ফারহানা ফারুক। কিন্তু মাউন্ট এলিজাবেথ হাতপাতালে ভর্তির পর

থেকেই ফারুক ও তার স্ত্রী ফারহানা ফারুক করোনাভাইরাসের কারণে কোয়ারেন্টানে চলে যান। ফলে পাশাপাশি রুমে থেকেও দুজনের মধ্যে দেখা হতো না। তাদের কথা হতো ফোন ও ভিডিও কলে। অবশেষে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন পর্ব শেষে হাসপাতালের নিয়ম মেনে স্ত্রীর দেখা পেলেন ফারুক।এ প্রসঙ্গে ফারুক বলেন, ‘আমাদের দাম্পত্য জীবনের ২৮-২৯ বছরে এই প্রথম আমরা এতদিন আলাদা থাকলাম।

পাশাপাশি রুমে আছি কিন্তু কাছাকাছি নয়। আমার শরীর নিয়েও সে চিন্তিত ছিল। যাক, অবশেষে কোয়ারেন্টাইন পর্ব শেষ হলো এটাই স্বস্তি।’ চিকিৎসা কেমন চলছে জানতে চাইলে নায়ক ফারুক বলেন, ‘বেশ ভালোই আলহামদুলিল্লাহ। বেশকিছু টেস্ট করা হয়েছে। যে সমস্যাটা ছিল রোগ ধরা পড়ছিল না। সেটা এবার জানা গেছে। আমার রক্তে টিবি রোগ ধরা পড়েছে। এখানে ডাক্তার লাই চুংসহ চারজন বিশেষজ্ঞের অধীনে আমার চিকিৎসা চলছে।’

আরো পড়ুন…করোনায় শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যঝুঁকির কথা চিন্তা করে স্থগিত রাখা হয়েছে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা। তবে পরিস্থিতি অনুকূলে এলেই এই পরীক্ষার আয়োজন করতে চায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়। ইতোমধ্যে স্বাস্থ্যবিধি মেনে এই পরীক্ষা আয়োজনের লক্ষ্যে শিক্ষাবোর্ড থেকে তিনটি প্রস্তাব শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে।

শিক্ষাবোর্ডের ওই প্রস্তাবগুলো হলো- পরীক্ষার কেন্দ্রের সংখ্যা বৃদ্ধি করে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে পরীক্ষার আয়োজন করা; সিলেবাস ও নম্বর কমিয়ে অল্প সময়ের মধ্যে পরীক্ষা শেষ করা; এবং বিজ্ঞান, বাণিজ্য ও মানবিক বিভাগের মূল বিষয়গুলোর পরীক্ষা নিয়ে মূল্যায়নের মাধ্যমে পরীক্ষার্থীদের সার্টিফিকেট প্রদান করা। এদিকে, সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, শিক্ষাবোর্ডের এই তিনটি প্রস্তাবের বিষয়ে আগামীকাল বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বিস্তারিত তুলে ধরবেন। গত ২৪ সেপ্টেম্বর আন্তঃবোর্ডের সভায় সব বোর্ডের চেয়ারম্যানদের পরামর্শে তিনটি প্রস্তাব তৈরি করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়।