রাজশাহী মেডিকেলে একদিনে সর্বোচ্চ রেকর্ড ১৮ জনের মৃত্যু

করোনাভাইরাস ও উপসর্গ নিয়ে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে এক দিনে ১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। দেশে ভাইরাসটির সংক্রমণ শুরুর পর এটিই রাজশাহী মেডিক্যালের করোনা ইউনিটে সর্বোচ্চ মৃত্যু হিসেবে রেকর্ড করা হয়েছে।বুধবার সকাল থেকে বৃহস্পতিবার সকালের মধ্যে ১৮ জনের মৃত্যু হয়। এর মধ্যে করোনা শনাক্ত রোগী ছিলেন ৮ জন। উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু হয় ১০ জনের।

রামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় রামেক হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন ওয়ার্ডে ১৮ জন মারা গেছেন।

তাদের মধ্যে ৮ জন করোনায় এবং ১০ জন করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন। এই ১৮ জনের মধ্যে ১৩ জনেরই বাড়ি রাজশাহী জেলায়। এ ছাড়া নওগাঁর চারজন ও চাঁপাইনবাবগঞ্জের একজন মারা গেছেন।

তাদের মধ্যে সর্বোচ্চ ৫ জন মারা গেছেন হাসপাতালের ২২ নম্বর ওয়ার্ডে। হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে (আইসিইউ) ও ১ নম্বর ওয়ার্ডে চারজন করে মারা গেছেন। এ ছাড়া ১৭ নম্বর ওয়ার্ডে ৩ জন, ১৫ ও ৩২ নম্বর ওয়ার্ডে ১ জন করে মারা গেছেন।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ওয়ার্ডে নতুন রোগী ভর্তি হয়েছেন ৫৪ জন। এর মধ্যে শুধু রাজশাহীরই ৩৩ জন এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জের ১০ জন ভর্তি হয়েছেন। এ নিয়ে ৩৫৭ বেডের বিপরীতে মোট ভর্তি রোগী আছেন ৪০৪ জন। এর মধ্যে রাজশাহীর ২৭২ জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের ৫৯ জন, নাটোরের ২৬ জন, নওগাঁর ৩২ জন, পাবনার ১০ জন, কুষ্টিয়ার ৩ জন এবং চুয়াডাঙ্গার ১জন রয়েছেন।

এর আগের দিন রাজশাহীর দুটি পিসিআর ল্যাবে রাজশাহী জেলার ৩৮০টি নমুনা পরীক্ষায় ১২৯ জনের করোনা পজেটিভ আসে। রাজশাহীতে শনাক্তের হার ৩৩ দশমিক ৯৪ শতাংশ। নওগাঁর ১৮৩ নমুনা পরীক্ষায় ৫০ জনের পজেটিভ আসে। শনাক্ত হার ২৭ দশমিক ৩২ শতাংশ। চাঁপাইনবাবগঞ্জের ৯১ নমুনায় ৯ জনের পজেটিভ আসে, শনাক্তের হার ৯ দশমিক ৮৯ শতাংশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *