মাদ্রাসা ব্যাকগ্রাউন্ডের খুব কম সংখ্যক জঙ্গি পেয়েছি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, মাদরাসাগুলোতে দ্বীনি শিক্ষা দেওয়া হয়। সেখানে কোনো দিন জঙ্গি তৈরি হতে পারে না, আমরা তা প্রমাণ করে দিয়েছি। তিনি বলেন, মাদ্রাসার দুই-একটি ছাত্র বিপথে গিয়েছিল। এছাড়া আমরা অসংখ্য জঙ্গি ধরেছি। মাদ্রাসা ব্যাকগ্রাউন্ডের খুব কম সংখ্যক জঙ্গি পেয়েছি। বৃহস্পতিবার (১৯ মে)

রাতে রাজধানীর আগারগাঁওয়ের বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বিশ্বজয়ী হাফেজদের সংবর্ধনা ও জাতীয় হিফজুল কুরআন প্রতিযোগিতা ২০২২ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ দ্বীনি সেবা ফাউন্ডেশন অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, যখন সন্ত্রাসী-জঙ্গি আক্রমণে দেশ স্থবির হয়ে যাচ্ছিল। ভয়ানক একটা ষড়যন্ত্র হচ্ছিল।

এটা আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র আমি বলে আসছিলাম। আমাদের দেশের কেউ এখানে সম্পৃক্ত নয়। তিনি বলেন, সব ভুল বুঝাবুঝির দূর করে আলেম-ওলামাদেরকে আমরা একটি জায়গায় নিয়ে এসেছি।আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, আমি বিশ্বের অনেক মুসলিম রাষ্ট্র ভ্রমণ করেছি। বাংলাদেশের মতো ধর্মপ্রাণ মুসলমান অনেক কম দেশে দেখেছি।

আগে দেশের মসজিদগুলোতে দেখেছি শুধু সিলিং ফ্যান ছিল। এখন মসজিদে মসজিদে এসি। এখন যে পরিমাণ মুসল্লি নামাজ আদায় করতে মসজিদে যায় আগে সে পরিমাণ মুসল্লি মসজিদে যেতেন না। এমনটা সম্ভব হয়েছে শুধুমাত্র আলেম-ওলামাদের ইসলাম ধর্মের দাওয়াতের কারণে।