ভ-য়ংক-র এই মা-ছ দেখা মা-ত্রই মে-রে ফেলার নি-র্দে-শ

যু-ক্তরা-ষ্ট্রের স-মুদ্রবি-জ্ঞা-নীরা পানি ছেড়ে ডা-ঙায় বাঁচ-তে পারে এমন মাছের স-ন্ধান পেয়েছেন। মা-ছটিকে ‘ভ’য়ংক-র’ আখ্যা-য়িত করে দেখা-মা-ত্র মে’রে ফেলার পরা-ম-র্শ দেওয়া হয়েছে।সং-বাদ-মাধ্যম ও-য়াশিংটন পো-স্ট এক প্র-তিবেদনে জা-নায়, মা-ছগু-লো দেখতে অ-নেকটা সা’পের ম-তো।

তাই নাম দেও-য়া হয়েছে ‘স্নে’ক-হেড ফিশ’। ১৯৯৭ সালেও একবার ক্যা-লিফোর্নি-য়ার সান বা-র্নাডি-নোর সি-লভার-হুড লেকে ধরা পড়ে এই মাছ। সে-সময় ধারণা করা হয়েছিল মা-ছটি পূ-র্ব এ-শিয়ার।

এ-টিকে এখন জ-র্জি-য়ায় পেয়ে অ-বাক হ-চ্ছেন বি-জ্ঞা-নীরা।২০০২ সালে স্নে’ক-হেড ফি-শ ধরা এবং বি-ক্রি বে’আ-ইনি বলে ঘো-ষণা করা হয়। স-ম্প্র-তি মেরিল্যা-ন্ড প্র-কৃ-তি সংর-ক্ষ-ণ বি-ভা-গের বি-জ্ঞা-নীরা গ-বে-ষণায় জা-নতে পেরেছেন, এর শ্বা-সত-ন্ত্র এমনভাবে তৈ-রি যে বাতাস থেকে মা-নুষে-র মতো শ্বা-স নিতে পারে।

ফলে পানি থেকে ডা’ঙা-য় তুল-লেও জী-বন ধারণে কোনো সম-স্যা হয় না। তবে আ-চম-কা প-রিবেশ বদলের ফলে কি-ছুটা নি’স্তে-জ হয়ে পড়ে। জ-লাশ-য়ের অ-ন্যান্য প্রা-ণী, ছোট মাছ এ-মনকি ছোট ইঁ-দু-রও এর খা-দ্য তালিকায় রয়েছে।

আর এই কা-রণে-ই অন্যান্য জ-ল-জ প্রা-ণীর কাছে এ-টি বি-পদের কা-রণ। ল-ম্বায় তিন ফু-টের কাছা-কাছি মাছটি প্রায় ১৮ পাউন্ড ও-জনের হয়। সেই স-ঙ্গে রয়েছে ধা’রালো দাঁ-ত। যার সা-হা-য্যে শি’কারে কোনো স-মস্যা হয় না।

আরও পড়ুন=-চি-কিত্স-কের প-রাম-র্শ ও ব্য-বস্থা-পত্র ছাড়াই সাধারণ ভা-ইরাল অ-সুখ-বিসু-খেও (জ্বর, ঠা-ন্ডা, কা-শি) উ-চ্চমা-ত্রার অ্যা-ন্টিবা-য়োটি-ক সেবনের কা-রণে ও-ষু-ধ কাজ করছে না।বৃ-হস্পতি-বার রা-জধানী-র ম-হা-খালী-তে ও-ষুধ প্রশা-সন অ-ধি-দপ্ত-রের স-ম্মে-লনক-ক্ষে মে-ডিসিন-স, টে-কনোলজি-স অ্যা-ন্ড ফার্মা-সি-উ-টিক্যাল-স সার্ভি–সেসের (এমটি-এপিস) সহায়তায় ‘দ্য ও-য়ার্ল্ড অ্যা-ন্টিমা-ইক্রো-বিয়াল অ্যা-ওয়ার-নেস উইক (১৮-২৬ নভেম্বর)’ উ-পল-ক্ষ্যে আয়োজিত এক অনু-ষ্ঠা-নে তিনি এসব কথা বলেন।