বেগম জিয়ার শারীরিক অবস্থার অবনতি, খেতে-হাঁটতে পারছেন না’

বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব ও খালেদা জিয়ার আইনজীবী ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার আরও অবনতি হয়েছে। তিনি নিজে খেতে পারছেন না। করোনা পরিস্থিতিতে দেশে স্বাভাবিক চিকিৎসা করা সম্ভব হচ্ছে না।

মানবিক দিক বিবেচনায় সরকার বেগম জিয়াকে বিদেশ যাওয়ার অনুমতি দেবে বলে আশাবাদী তার পরিবার।শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) রাতে বিএনপি চেয়ারপারসনের সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে এ কথা জানিয়েছেন দলটির ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন।মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, ওনার শরীরের অবস্থা ভালো না। দিন দিন অবনতির দিকে যাচ্ছে। হাঁটতে ওনার কষ্ট হচ্ছে। একা একা হাঁটতে পারেন না।

কারো সাপোর্টে হাঁটতে হচ্ছে। এ অবস্থায় আশা করছি সরকার স্বল্প সময়ের জন্য তাকে বিদেশে যেতে দেবেন। তিনি বলেন, বিদেশে যেতে পারবেন না এ শর্ত না দিলে ভালো হতো। এ শর্ত না দিলে সরকারের মানবিকতা আরও বেশি ফুটে উঠতো।

আরও পড়ুনঃঢাকাই সিনেমার শক্তিমান অভিনেতা ডিপজল। আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর তার ছেলের বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হবে। করোনার কারণে ঘরোয়া পরিসরেই বিয়ের আয়োজন করেছেন। সেখানে উপস্থিত থাকবেন শুধু দুই পরিবারের লোকজন।তবে পুত্রবধুকে উপহার দিলেন তিনি দু হাত খুলে।

এই অভিনেতার পারিবারিক সূত্র গণমাধ্যমে জানিয়েছে, ছেলের বউকে তিনি অর্ধকোটি টাকারও বেশি উপহার দিয়েছেন।শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর একটি ফার্নিচারের দোকান থেকে অর্ধকোটি টাকার ফার্নিচার কিনে ছেলের বউকে উপহার হিসেবে দিচ্ছেন তিনি।ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় অভিনেতা মনোয়ার হোসেন ডিপজল। চলচ্চিত্রের পর্দায় এ অভিনেতাকে নেতিবাচক ও ইতিবাচক দুই চরিত্রেই দেখা গেছে।

তবে খল অভিনেতা হিসেবেই অধিক পরিচিত তিনি।চলচ্চিত্রপাড়ায় ‘দানবীর’ হিসেবে খ্যাতি রয়েছে ডিপজলের। সিনেমা সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সংগঠনের পিকনিক, ঈদ-পার্বনে দু হাত খুলে দান করে থাকেন তিনি। করোনা মহামারির শুরু থেকেও ডিপজল নানাভাবে চলচ্চিত্রের মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন।