বিএনপি জ্বালাও পোড়াও রাজনীতিতে বিশ্বাস করেনা: বরকতউল্লাহ

বিএনপি’র ভাইস চেয়ারম্যান বরকতউল্লাহ বুলু বলেন, বিএনপি জ্বালাও পোড়াও রাজনীতিতে বিশ্বাস করেনা। জনগণকে সাথে নিয়ে গণতান্ত্রিক আন্দোলনে বিশ্বাসী। গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় ভোটের মাধ্যমে বিএনপি সরকার পরিবর্তনে বিশ্বাস করে।

মঙ্গলবার (১৭ নভেম্বর) সকালে আওয়ামী মুসলিম লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মজলুম জননেতা মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানীর ৪৪তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে টাঙ্গাইলের সন্তোষে তার কবর জিয়ারত শেষে তিনি এ সব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, আজকে মওলানা ভাসানী বেঁচে থাকলে দেশে ভোটার বিহীন নির্বাচন হতে পারতোনা। ভাসানীর আদর্শে উজ্জিবিত হয়ে এই স্বৈরাচার সরকারের পতন ঘটাতে হবে।এ সময় বিএনপি’র কেন্দ্রীয় নেতা খায়রুল কবীর খোকন, শিমুল বিশ্বাস, টাঙ্গাইল জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ছাইদুল হক ছাদু, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট ফরহাদ ইকবালসহ দলীয় নেতাকর্মীরা পুস্পস্তবক অর্পণের সময় উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন=রুহুল আমিন শরিফ তাঁর কর্মস্থল নোয়াখালীর হাতিয়া শাখা কৃষি ব্যাংকে বসে কাজ করছিলেন।এক সহকর্মী এসে জানালেন, বিসিএস পরীক্ষার ফল বেরিয়েছে। পরীক্ষার রোল তাঁর মনেই ছিল। তবু প্রবেশপত্র দেখতে দ্রুত বাসায় গেলেন রুহুল আমিন। ফিরে এসে ফল দেখতে লাগলেন। প্রথমে নিচের দিক থেকে দেখতে শুরু করলেন। কিছুতেই খুঁজে পাচ্ছিলেন না নিজের রোল। হঠাৎ ওপরের দিকে তাকাতেই দেখলেন, প্রশাসনের তালিকার একদম ওপরের রোলটা তাঁর। বুঝে গেলেন ৩৮তম বিসিএসের ফলাফলে প্রশাসন ক্যাডারে তিনিই প্রথম হয়েছেন।

পরীক্ষার ফল দেখার পর ধাতস্থ হতে একটু সময় নিয়েছিলেন। এরপর প্রথমেই রুহুল আমিনের মনে পড়ে বাবার কথা।‘কারণ, উচ্চ মাধ্যমিকের পর পড়াশোনায় কিছুটা খা’রাপ করায় বাবা আমা’র ওপর অ’ভিমান করেছিলেন। তখন বাবা বলেছিলেন, কোনো কিছুতে কখনো যদি দেশসেরা হয়ে দেখাতে পারো, তাহলে অ’ভিমান যাবে। তাই সব থেকে খুশির এই সংবাদটি প্রথমেই বাবাকে জানাই।’ বললেন রুহুল আমিন।