বাবার সেবা করতে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত নায়ক ফারুকের মেয়ে

ঢাকাই সিনেমার কালজয়ী নায়ক ও জাতীয় সংসদ সদস্য আকবর হোসেন পাঠান ফারুক করোনায় আক্রান্ত। সম্প্রতি তিনি সিঙ্গাপুর থেকে উন্নত চিকিৎসা নিয়ে দেশে ফিরেছিলেন। কয়েকটা দিন ভালোই কাটছিলো। কিন্তু ১৫ নভেম্বর তার শরীরে করোনা ভাইরাস ধরা পড়ে। এরপর তাকে পরদিন সন্ধ্যা ৬টায় কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এখানে সার্বক্ষণিক তার সঙ্গী হয়ে আছেন স্ত্রী ফারহানা ফারুক।

তবে বাসায় থাকাকালীন বাবার দেখাশোনা করতে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ফারুকের মেয়ে ফারিহা তাবাসসুম পাঠান তুলসি। এই অভিনেতার পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, গত পাঁচদিন ধরে করোনায় আক্রান্ত তুলসি।

বাবার সংস্পর্শে গিয়েই তার শরীরে করোনা ভাইরাস ছড়িয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে তার শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে। তিনি বাসাতেই আইসোলেশনে রয়েছেন। চিকিৎসকদের পরামর্শে খাবার ও ওষুধ গ্রহণ করছেন। তবে করোনা থেকে মুক্ত আছেন নায়ক ফারুকের একমাত্র পুত্র শরৎ।

আরও পড়ুন=২০২১ সালের জুন মাসে যান চলাচলের জন্য উন্মুক্ত হতে যাচ্ছে স্বপ্নের পায়রা সেতু। ইতোমধ্যে সেতুটির ৭৫ শতাংশ কাজ সম্পন্ন হয়েছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। সেতুটি চালু হলে দক্ষিণ অঞ্চলের অর্থনৈতিক পরিবর্তনের পাশাপাশি নিরবচ্ছিন্ন সড়ক ব্যবস্থা চালু হবে। জানা গেছে, ২০১৬ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পায়রা নদীর ওপর পায়রা সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। এরপর বরিশাল-পটুয়াখালী সড়কের পায়রা নদীর ওপর সেতুর নির্মাণ কাজ শুরু করে সড়ক ও জনপথ বিভাগ।

চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান লনজিয়ান রোড অ্যান্ড ব্রিজ কনস্ট্রাকশন সেতুটি নির্মাণে কাজ করছে। এক হাজার ৪৭০ মিটার দৈর্ঘ্য এবং ১৯.৭৬ মিটার প্রস্থের এই সেতুটি ক্যাবল দিয়ে দুই পাশে সংযুক্ত করা থাকবে। ফলে নদীর মাঝখানে মাত্র একটি পিলার ব্যবহার করা হয়েছে। এতে নদীর স্বাভাবিক প্রবাহ ঠিক থাকবে। নির্ধারিত সময়ে সেতুটির নির্মাণ কাজ শেষ করতে দেশি-বিদেশি প্রকৌশলীরা দিনরাত কাজ করে যাচ্ছেন।