বাংলাদেশিদের জন্য জরিমানা কমাল ভারত

মেয়াদোত্তীর্ণ ভিসার ক্ষেত্রে বাংলাদেশিদের জন্য জরিমানা কমিয়েছে ভারত।আগে দেশটিতে অবস্থানকালে বাংলাদেশিদের ভিসার মেয়াদ শেষ হলে অধিক পরিমাণ জরিমানা দিতে হত।এই জরিমানার ক্ষেত্রে বাংলাদেশি মুসলিম ধর্মাবলম্বী ও অন্য ধর্মাবলম্বীদের মধ্যে ব্যাপক পার্থক্য ছিল।তবে বর্তমান নিয়মে তা অনেক কমানো হয়েছে।

আগের নিয়মে, কোনো বাংলাদেশি মুসলমানের ভিসার মেয়াদ শেষ হওয়ার পর ভারতে থাকলে, ওভার স্টে বাবদ ব্যক্তিটিকে দিতে হত মোটা অঙ্করে জরিমানা।তবে মুসলিম সম্প্রদায় বাদে হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান অথবা জৈন ধর্মের হলে একই দোষে তাকে জরিমানা গুনতে হত অনেক কম।আগের নিয়মে বলা হয়েছিল, এই ৩ দেশের সংখ্যাগুরু (মুসলিম) নাগরিকেরা

যদি ভিসার মেয়াদ শেষের পরও ভারতে অবৈধভাবে অবস্থান করেন, তবে তাদের বেআইনি অবস্থানের ১ থেকে ৯০ দিনের জন্য দিতে হবে ২১ হাজার রুপি জরিমানা, ৯১ দিন থেকে ২ বছর পর্যন্ত অবস্থান করলে দিতে হবে ২৮ হাজার রুপি এবং ২ বছরের বেশি সময় ধরে অবস্থান করলে দিতে হবে ৩৫ হাজার রুপি।

সম্প্রতি এই আদেশ বাতিল করে ওই তিন দেশের ভিসার মেয়াদোত্তীর্ণকারীদের জরিমানার হার সব নাগরিকের জন্য সমান করা হয়।এতে বলা হয়েছে, সবার জন্য ১ থেকে ১৫ দিনের জন্য ৫০০ রুপি, ১৬ থেকে ৯০ দিনের জন্য ৫ হাজার রুপি, ৯১ থেকে ২ বছর ১০ হাজার রুপি ও ২ বছরের বেশি যারা, তাদের ২০ হাজার রুপি জরিমানা দিতে হবে।

আরো পড়ুন..আগামী বছরের গ্রীষ্মের আগেই এমিরেটস এয়ারলাইন্স তাদের ১৪৩টি গন্তব্যে শতভাগ ফ্লাইট চালু করতে পারবে। এমন আশার কথা জানিয়েছেন বিমানসংস্থাটির প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা আদেল আল-রেধা।করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় ভাইরাসটির সংক্রমণ রোধ ও স্বাস্থ্য সুরক্ষায় বিশ্বের প্রায় সব দেশের সীমানাই বন্ধ করে রাখা হয়েছে।এতে মারাত্মক ক্ষতির মুখে পড়েছে বিমান পরিবহন বাণিজ্য। এমিরেটসের ওয়েবসাইটের তথ্য মতে, সংস্থাটি বর্তমানে ৮০টির মতো গন্তব্যে ফ্লাইট পরিচালনা করছে।চলতি সপ্তাহে মার্কিন গণমাধ্যম সিএনবিসি’কে দেয়া সাক্ষাৎকারে আদেল আল-রেধা বলেন,