বাংলাদেশসহ ৩১ দেশে কুয়েত নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার কারন জানা গেলো

কিছু দেশ থেকে ফ্লাইট নিষিদ্ধ করা স্বাস্থ্য সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত, রাজনৈতিক নয়; এবং স্থায়ীভাবে নয়, পরবর্তী বিজ্ঞপ্তি না হওয়া পর্যন্ত এটি কার্যকর করা হবে বলে কূটনৈতিক সূত্রের বরাত দিয়ে বিষয়টি জানিয়েছে কুয়েতভিত্তিক বার্তা সংস্থা আল-কাবাস।দৈনিকের সাথে কথা বলে কূটনৈতিক সূত্র আশ্বাস দিয়েছিল যে এই নিষেধাজ্ঞার ফলে কূটনৈতিক সম্পর্ক প্রভাবিত হবে না।

যেহেতু সমস্ত দেশের জন্য একইভাবে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে তাই বিষয়টি রাজনৈতিক সম্পর্কিত নয়।সূত্রগুলি উল্লেখ করেছে যে নিষিদ্ধ দেশগুলিতে বেশ কয়েকটি কারণে নিষেধাজ্ঞা ঘোষণা করা হয়েছিল,যার মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল এই দেশগুলিতে করোনার বিস্তার ছড়ানোর বৈশ্বিক সূচক এবং দেশগুলিথেকে আসা যাত্রীরা যেন কুয়েতে করোনা আরও ছড়িয়ে না দিতে পারে তার জন্য এই সিদ্ধান্ত।

এদিকে,বিমানের সরাসরি ফ্লাইটের খবরে সিলেট জুড়ে স্বস্থি নেমে এসেছে জনগণের মধ্যে। ইতিমধ্যে সিলেট বাসী জেনে গেছেন লন্ডন-সিলেট রুটে বিমানের সরাসরি ফ্লাইট ফের চালু হচ্ছে। আগামী সোমবার যুক্তরাজ্যের হিথ্রো বিমানবন্দর থেকে ওই ফ্লাইটটি সিলেটের ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানববন্দরে এসে অবতরণ করবে। এই খবরে সিলেটে আনন্দ চলছে। চায়ের দোকান থেকে ঘরের অন্দর মহলেও চলছে এই আনন্দ। সিলেটবাসীরা বলেছেন,

বিমান থেকে নামার পর তারা এখন তাদের প্রিয় মানুষটাকে দেখতে পাবেন। একই সংগে প্রিয় মানুষটাকে বিমানবন্দরে গিয়ে বিদায়ও জানাতে পারবেন। তারা এই সংবাদে কৃতজ্ঞতা জনিয়েছেন, বাংলাদেশ বিমানসহ সংশ্লিস্ট সবাইকে।এলাকাবাসী বলেছেন, সিলেট-১ আসনের এমপি ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেনের প্রচেষ্টায় এই ফ্লাইটটি চালু হয়েছে। এতে খুশি সিলেট ও লন্ডনের মানুষ। এখন কোনো ভোগান্তি ছাড়াই নিজ শহর সিলেটে আসতে পারবেন লন্ডন প্রবাসীরা। লন্ডন থেকে সরাসরি ফ্লাইট বন্ধ হয়ে পড়ার পর ঢাকায় ইমিগ্রেশন ও কাস্টমস শেষ করে অভ্যন্তরীণ ফ্লাইটে সিলেট আসতে হতো যুক্তরাজ্য প্রবাসীদের। এতে ভোগান্তি চরমে পৌঁছে।

এ নিয়ে তীব্র ক্ষোভ দেখা দেয় লন্ডন ও সিলেটে। বিষয়টি নিয়ে লন্ডন ও সিলেটের বিভিন্ন শ্রেণিপেশার নেতৃবৃন্দ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন, বেসরকারি বিমান প্রতিমন্ত্রীসহ সরকারের বিভিন্ন পর্যায়ে আলোচনা করেন। এমনকি এ নিয়ে আন্দোলনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছিল সিলেটে। পরবর্তীতে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর প্রচেষ্টায় সেই ফ্লাইটটি পুনরায় চালু করা হয়েছে। ইতিমধ্যে সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ সেই প্রস্তুতিও শুরু করেছে।