প্রবাসী পাত্রী সেজে বিয়ের প্রলোভনে ১১ বছরে ৩০ কোটি টাকা আয়

গত ১১ বছর ধরে সাদিয়া জান্নাত ওরফে জান্নাতুল ফেরদৌস (৩৮) নিজেকে কানাডা প্রবাসী হিসেবে পরিচয় দিয়ে পাত্র চেয়ে পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিয়ে প্রতারণার মাধ্যমে প্রায় ৩০ কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়।বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীর গুলশান এলাকা থেকে জান্নাতুল ফেরদৌসকে গ্রেফতার করে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।

শুক্রবার (১৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে রাজধানীর মালিবাগে সিআইডির কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান সিআইডির অতিরিক্ত ডিআইজি শেখ রেজাউল হায়দার।‘কানাডার সিটিজেন ডিভোর্সি ও সন্তানহীন নারীর জন্য পাত্র চাই’- জাতীয় দৈনিকে এমন বিজ্ঞাপন দিয়ে প্রতারণা করে ৩০ কোটিরও বেশি টাকা হাতিয়ে নেয় সাদিয়া জান্নাত ওরফে জান্নাতুল ফেরদৌস।

শিক্ষাগত যোগ্যতা এসএসসি পাস হলেও প্রতারক জান্নাতের কথাবার্তা ও স্মার্টনেস দেখে তার ফাঁদে পড়ে কোটি টাকা খোয়া গেছে অনেকের।অভিযানে তার কাছ থেকে ভুক্তভোগীদের অনেক পাসপোর্ট, ১০টি মোবাইল ফোন, ৩টি মেমরি কার্ড, ৭টি সিল, অসংখ্য সিম ও প্রতারণার মাধ্যমে আত্মসাত করা টাকার একটি হিসাব বই উদ্ধার করা হয়।

আরো পড়ুন…সড়ক পথে ভ্রমণ ক’রেছেন নিশ্চয়! রাস্তার মাঝে হলুদ ও সাদা দাগ টানা নজরে প’ড়েছে অবশ্যই। তবে কখনো কি প্রশ্ন জেগেছে কেন থাকে এই দাগ? কোন কারণে এই দাগ দেয়া হয় জা’নার আগ্রহটা অনেকেরই থাকে।তবে আগ্রহ না থাকলেও জে’নে রাখা অবশ্যই জ’রুরি। গাড়ি চালাতে না জানলেও এ ব্যাপারে জানতে পারেন যে কেউ। অন্ত’ত পু’লিশের জ’রিমানা এড়াতে জে’নে রাখা ভালো। জ’রিমানার কথা বাদ দিলেও নিজে’র নিরাপ’ত্তার জন্যই বি’ষয়টি জে’নে রাখা জ’রুরি। কারণ যে হারে সড়ক দু’র্ঘ’টনা বাড়ছে, তাতে এমন আশ’ঙ্কা থেকেই যায়। তাই যাত্রীদের না জা’না থাকলেও চালককে অবশ্যই এ স’ম্পর্কে জানতে হয়।