ধনকুবের থেকে পথে বসার উপক্রম ‘অনিল আম্বানি’র

বিশ্বের অন্যতম ধনী ব্যক্তিদের তালিকায় নাম ছিল অনিল আম্বানি’র। ভাগ্যের পরিক্রমায় আজ পথে বসার উপক্রম। চীনের ব্যাংকগুলো তার কাছ থেকে বকেয়া পাওনা আদায় করতে শেষ পর্যন্ত আদালতের দ্বারস্থ হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে অনিল আম্বানি লন্ডনের আদালতকে জানিয়েছেন মামলার খরচ চালাতে গিয়ে সমস্ত গয়না বিক্রি করতে হচ্ছে। বর্তমানে তার সমস্ত খরচ বহন করছে তার স্ত্রী এবং পরিবার। শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) অনলাইনের মাধ্যমে আম্বানিকে লন্ডনের হাইকোর্টে হাজিরা দিতে হয়।

প্রায় তিন ঘণ্টা ধরে তিনি তার সম্পত্তি, দায়, খরচ সম্পর্কে প্রশ্নের মুখোমুখি হন আম্বানি আদালতের নির্দেশ অনুসারে ব্যাংক গুলোকে অর্থ মেটাতে ব্যর্থ হওয়ায় তার কাছে তার সেইসব সম্পত্তির তালিকা চাওয়া হয় যেগুলোর মূল্য ১ কোটি ডলারের বেশি। সেই সাথে গেল ২৪ মাসের ব্যাংক এবং ক্রেডিট কার্ড হিসাব চাওয়া হয়।

অনিল আম্বানি জানান তার সম্পত্তি এখন -ঋণাত্মকে দাঁড়িয়েছে। যদিও চীনের ব্যাংকগুলো সে কথা মানতে চায়নি। তার বিলাসবহুল জীবনযাত্রার কথা তোলা হয়। যদিও সেই প্রসঙ্গে তিনি তার ভাই মুকেশ আম্বানির কাছ থেকে সহায়তা পেয়েছেন বলে জানান।ব্যাঙ্কগুলোর প্রতিনিধি আদালতকে জানান, অনিল আম্বানির দেয়া তালিকায় গড়মিল রয়েছে। অনিল জানান, যেহেতু তিনি এখন ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করেন না তাই তার ক্রেডিট কার্ডের সাম্প্রতিক স্টেটমেন্ট নেই।