দ্বিতীয়বার জয়কে ক্ষমা চাওয়ার সুযোগ দিলেন নায়ক মান্নার স্ত্রী শেলী মান্না

চলচ্চিত্রের মানুষ হওয়ায় জয়ের সাথে সম্পর্ক ভালো হওয়ার কারণে দ্বিতীয়বারের মতো ক্ষমা চাওয়ার সুযোগ দিলেন প্রয়াত চিত্রনায়ক মান্নার স্ত্রী কেবিন ক্রু শেলী মান্না। বিষয়টি নিয়ে ইতোমধ্যে চলচ্চিত্রের তিন সমিতিকে অবগত করেছেন তিনি। এমনটাই সময় সংবাদকে জানালেন তিনি।শেলী মান্না বলেন, ‘জয়ের সাথে আমার ব্যক্তিগত কোনো দ্বন্দ্ব নেই। তাকে হেয় করার মতো কোনো কারণও ছিল না।

তবে তিনি তার অনুষ্ঠানের মাধ্যমে একটা সম্প্রদায়কে তুচ্ছ করে কথা বলেছেন। সেই অনুষ্ঠানে বিমানের কেবিন ক্রুদের যেভাবে অপমান করেছেন একজন কেবিন ক্রু হিসেবে আমার সম্মানহানি হয়েছে।এ কারণে আমি আবার তাকে বলব আপনি ক্ষমা চেয়ে বিষয়টি সমাধান করুন। অন্যথায় মানহানিকর বিষয়ের জন্য প্রথমবার নোটিশ পাঠাতে বাধ্য হব। অন্যথায় আইনের পথে হাটতেও পিছুপা হব না।’

শেলী মান্না বলেন, ‘‘জীবনের গল্প’ এটিকে নিয়ে সমাজে একটি ইতিবাচক ভূমিকা রাখতে পারতেন। কিন্তু তা না করে আপনি ছকবাঁধা সস্তা চেতনা ও জীবনবোধে উপস্থাপনায় নেই কোন কৌশলগত দিক। সস্তা জনপ্রিয়তা পাবার আশায় এদেশের একশ্রেণীর নেতিবাচক ভিউওয়ারদের মানসিকভাবে উজ্জীবিত করে থাকেন। স্থুল মনমানসিকতার পরিচয় দিচ্ছেন আপনি। ডিপ্লোম্যাসির কোনো বালাই নেই আপনার মধ্যে।

সংস্কৃতিক জগতের বাসিন্দা হয়েও আপনি কোনোভাবেই সংস্কৃতিমনা নন। এই আপনার স্মার্টনেস? আপনার অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত হয়ে যেসব বিশেষ অতিথি এসে থাকেন তাদের প্রত্যেকের একটি পারিবারিক ও সামাজিক পরিসর রয়েছে, আছে সামাজিক মূল্যবোধ। আশা করি বিষয়টির আপনি সুষ্ঠু সমাধান করবেন।’

বিষয়টি শাহরিয়ার নাজিম জয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, আমি অন্যায় করিনি। অনুষ্ঠানে ব্যক্তির বিষয় প্রত্যেকে জানতে চায়। আমি শুধুমাত্র সেই জায়গা থেকে বিষয়গুলো জানতে চেয়েছি। এ ছাড়া শেলী ভাবি আমার শ্রদ্ধেয় একজন মানুষ। তিনি যদি আমাকে ক্ষমা চাইতে বলেন তবে আমি চেয়ে নেব। তবে তিনি আমার অনুষ্ঠানে এসে অনুষ্ঠানেই ক্ষমা চাওয়ার কথা বললেই আমি তখন সকলের সামনে ক্ষমা চেয়ে নেব।