দেড় কেজি চরস উদ্ধার রিয়ার বাড়ি থেকে! ১০ বছর টানতে হতে পারে জেলের ঘানি

সুশান্ত সিং রাজপুতের (sushant singh rajput) মৃত‍্যুর কারণ খোঁজার জন‍্য যে তদন্ত শুরু হয়েছিল তা এখন বলিউডে মাদক (drugs) চক্র খোঁজাতে পরিণত হয়েছে। মাদক মামলায় অভিযুক্ত রিয়া চক্রবর্তী (rhea chakraborty) ও তাঁর ভাই শৌভিক চক্রবর্তীকে গ্রেফতার করে নারকোটিকস কন্ট্রোল ব‍্যুরো। জেল হেফাজতে রাখা হয়েছে তাঁদের।

এবার মাদক মামলায় আরো গুরুতর ভাবে ফাঁসলেন রিয়া। জানা গিয়েছে, তাঁর বাড়ি থেকে দেড় কেজি চরস উদ্ধার হয়েছে। তবে এখনো এই বিষয়ে NCB কিছুই জানায়নি। NCBর বক্তব‍্য, তারা মাদক মামলা নিয়ে তদন্ত করছে। এর সঙ্গে সুশান্ত মৃত‍্যু মামলার কোনো যোগ নেই। খবর সত‍্যি হলে অন্তত ১০ বছর জেলের ঘানি টানতে হতে পারে রিয়া চক্রবর্তীকে।

অপরদিকে প্রকাশ‍্যে এসেছে আরো এক বিষ্ফোরক তথ‍্য। বলিউডে মাদক চক্রের মূল পাণ্ডা একজন অভিনেত্রী। একসময় তিনি জনপ্রিয় সুপারমডেলও ছিলেন। এমনটাই জানা গিয়েছে নারকোটিকস কন্ট্রোল ব‍্যুরোর সূত্রে। এক সংবাদ মাধ‍্যমকে এমনটাই জানায় NCBর সূত্র।এখনো পর্যন্ত বলিউড মাদক মামলায় দীপিকা পাডুকোন, সারা আলি খান, রকুল প্রীত সিং ও শ্রদ্ধা কাপুরকে জেরা করেছে NCB।

সুশান্ত সিং রাজপুতের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীকে জেরার সময়েই উঠে আসে এই অভিনেত্রীদের নাম।রিয়া দাবি করেন, নিয়মিত মাদক সেবন করতেন এই অভিনেত্রীরা। এর আগে থেকেই অবশ‍্য রিয়াকে সুশান্তের মৃত‍্যু মামলার জন‍্য জেরা করা হচ্ছিল। তিন তিনটি তদন্তকারী সংস্থা জেরা করছিল রিয়া চক্রবর্তীকে।

এক সংবাদ মাধ‍্যম সূত্রে খবর, মাদক মামলায় NCBর নজরে রয়েছে আরো তিন তারকা। তবে এই মাদক চক্রের মূল পাণ্ডা হলেন একজন অভিনেত্রী যিনি কিনা একসময় সুপারমডেলও ছিলেন। ওই তিন অভিনেতাকেও শীঘ্রই জেরার সমন পাঠাতে পারে NCB।সূত্রের খবর, বলিউডে পরিচালক, অভিনেতাদের যারা

মাদক সরবরাহ করছে তাদের পাকরাও করে তাদের পরিচয় ফাঁস করে দেওয়ার চেষ্টা চালাচ্ছে NCB। তবে এই চক্রের মূল পাণ্ডা ইন্ডাস্ট্রির বেশ বড় মাথা বলেই অনুমান NCBর। স্থানীয় মাদক পাচারকারীদের সঙ্গে যোগাযোগ রয়েছে তার। এভাবেই বলিউডে মাদক চক্র চালাচ্ছেন ওই অভিনেত্রী।