দু:সংবাদ! কুয়েতে বাংলাদেশসহ নিষিদ্ধ ৩২ দেশের নামের তালিকা পরিবর্তন হয়নি

করোনা বিস্তার ঠেকাতে কুয়েতে বন্ধ রাখা হয়েছে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চলাচল। বিভিন্ন দেশের প্রবাসীদের কুয়েত থেকে নিজ দেশে ফিরতে চালু রয়েছে বিশেষ ফ্লাইট ব্যবস্থা।বাংলাদেশ, ভারত, নেপাল, মিসর, পাকিস্তানসহ নিষিদ্ধ ৩২ দেশের সঙ্গে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চলাচলের নামের তালিকার কোনো পরিবর্তন করা হয়নি।

নিষেধাজ্ঞা বলবৎ রয়েছে পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত। সোমবার (৩১ আগস্ট) কুয়েতের মন্ত্রিসভার বৈঠকের বরাত দিয়ে দেশটির জাতীয় আরব দৈনিক আল কাবাস এক সংস্করণে বিষয়টি নিশ্চিত করে। প্রকাশিত সংবাদে আরও বলা হয়- নিষিদ্ধ ৩২ দেশের সার্বিক করোনা পরিস্থিতি হ্রাস ও বৃদ্ধি পর্যালোচনা করে কুয়েতে ফ্লাইট পরিচালনার নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হবে।

এদিকে করোনা পরিস্থিতি বিবেচনা করে কুয়েতে থাকা প্রবাসীদের আকামার মেয়াদ ১ সেপ্টেম্বর থেকে আরও তিন মাস বাড়ানো হয়েছে।দেশটিতে ১৬১ দিন পর ৩০ আগস্ট তুলে নেয়া হয়েছে চলমান কারফিউ। কোম্পানি হতে ছাড়পত্র নিয়ে ক্ষুদ্র ও মাঝারি প্রতিষ্ঠানের শ্রমিকদের আকামা পরিবর্তন করার সুযোগ দেয়া হয়েছে। ধীরে ধীরে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরছে কুয়েত।

আরো পড়ুন…পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান বলেছেন, এই সরকার কোনো সাধারণ সরকার নয়, ভিন্ন ধরনের সরকার। সরকারপ্রধান একজন ভিন্ন ধরনের মানুষ, যিনি পিছিয়ে পড়া মানুষের জন্য কাজ করতে ভালোবাসেন। সরকার চলাতে গিয়ে অনেক চাপে থাকেন তিনি। অনেক শক্তিশালী গোষ্ঠী তাকে চাপ দেয়। যাদের বাদ দিয়ে পারা যায় না, সঙ্গে রাখতেই হয়।তিনি বলেন, ক্ষমতায় থাকতে গেলে সবাইকে নিয়ে এগোতে হয়, এজন্য তাকে আপস করতে হয়। পদে পদে আপস করতে হয়। এসবের পরও তার হৃদয়ের মণিকোঠায় সাধারণ মানুষের স্থান। এটা বুঝি বলেই আমি তার সঙ্গে আছি। শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে অনেকে অনেক কিছু বলে, লিখে; তার কারণও হয়তো থাকতে পারে, কারণ তারা পণ্ডিত মানুষ, জ্ঞানী মানুষ। তারপরও আমি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আছি; কারণ তার সঙ্গে থাকার কারণে সাধারণ মানুষের জন্য কাজ করতে পারি।