দিনাজপুরে ভয়াবহ পরিস্থিতি, করোনার নতুন রেকর্ড

দেশের উত্তরের জেলা দিনাজপুরে ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে করোনা পরিস্থিতি। প্রতিদিন লক্ষণীয় হারে বাড়ছে জেলাটিতে করোনার সংক্রমণ। করোনা মোকাবিলায় জেলাটির সদরে দেয়া হয়েছে কঠোর লকডাউন। কিন্তু তবু গেল ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১০০২টি। সেখানে করোনা শনাক্ত হয়েছে ৪৮৩ জনের। যা জেলাটিতে একদিনে আক্রান্তের সর্বোচ্চ রেকর্ড।

এছাড়া ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ৩ জনের। জেলায় করোনা শনাক্তের হার ৪৮.২০% শতাংশ। আজ বৃহস্পতিবার (২৪ জুন) জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। এ পর্যন্ত দিনাজপুর জেলায় করোনায় মোট আক্রান্ত হয়েছে ৭৮০০ জন। মোট মৃত্যুবরণ করেছে ১৫৮ জন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে ৫ হাজার ৯৬৪।

বর্তমানে মোট করোনা পজিটিভ রোগী রয়েছে ১ হাজার ৬৭৮ জন। সদরে বহিরাগতদের আনাগোনায় করোনার রোগী দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে মনে করছে স্থানীয়রা। তাই বহিরাগতদের শহরে প্রবেশ ঠেকাতে আরও কঠোর হওয়ার আহ্বান জানিয়েছে তারা। দিনাজপুর সদরে লকডাউনে সাতটি পয়েন্টে পুলিশ, বিজিবি ও আনসার সদস্যরা কঠোর নজরদারির মধ্য দিয়ে তাদের দায়িত্ব পালন করছেন। সদরে প্রবেশের প্রধান রাস্তাগুলো বাঁশের ব্যারিকেড দিয়ে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

কিন্তু তাতেও মানুষের চলাচলে নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না। মানুষ নানামুখি কাজের অজুহাতে শহরে প্রবেশ করছে। জেলা প্রশাসক ও পুলিশ প্রশাসনের সামাজিক ও শারীরিক দূরত্ব মেনে চলা ও মাস্ক ব্যবহারে প্রচার-প্রচারণা অব্যাহত থাকলেও বেশির ভাগ মানুষের মধ্যেই তা পলনে অনীহা লক্ষ্য করা গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *