ড্রোন হামলায় সৌদি বিমানবন্দর অচল: হুতি

সৌদি আরবের আবহা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর লক্ষ্য করে ড্রোন হামলা চালানোর কথা জানিয়েছে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীরা। আজ মঙ্গলবার বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।ইরানপন্থী হুতি বিদ্রোহীদের এক সামরিক মুখপাত্র বলেন, আবহা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর লক্ষ্য করে তাঁরা একাধিক ড্রোন হামলা চালিয়েছেন।

হুতিদের ভাষ্য, গত রোববার দফায় দফায় চালানো এই ড্রোন হামলায় আবহা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর কয়েক ঘণ্টার জন্য অচল হয়ে যায়।হুতি বিদ্রোহী পরিচালিত আল মাসিরাহ টিভিতে বলা হয়, ইয়েমেনে সৌদি আরবের নেতৃত্বাধীন সামরিক জোটের বিমান হামলার জবাবে এই ড্রোন হামলা চালানো হয়।

সৌদি জোট অবশ্য দাবি করেছে, তারা হুতিদের ড্রোন হামলা ঠেকিয়ে দিয়েছে। হুতিদের ড্রোন ধ্বংস করা হয়েছে।আবহা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরটি সৌদি আরবের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় আসির প্রদেশে অবস্থিত। প্রদেশটির রাজধানী আবহা।ইয়েমেনে ২০১৪ সাল থেকে গৃহযুদ্ধ চলছে। দেশটির একটা অংশ হুতিদের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। ২০১৫ সালে ইমেয়েনে হুতিদের বিরুদ্ধে সামরিক অভিযান শুরু করে সৌদি জোট।

আরো পড়ুন…ব্যবসা বাণিজ্য পুরোদমে চালু করতে সব স্থলবন্দর খুলে দিচ্ছে ইরাক। একই সঙ্গে খুলছে দেয়া হচ্ছে হোটেল মোটেল, রেস্তোরাঁ ও ক্রীড়াঙ্গন। দেশটির প্রধানমন্ত্রী মুসতাফা আল খাদেমি সোমবার এ ঘোষণা দেন। খবর আরব নিউজের।এমন সময় ইরাক সরকার সীমান্ত খুলে দেয়ার ঘোষণা দিল, যখন করোনার সংক্রমণ হঠাৎ করেই গত কয়েক দিন ধরে বেড়েছে।প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, হোটেলসহ অন্যান্য ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানকে অবশ্যই সরকারের স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে মেনে চলতে হবে। তবে অফিস আদালতে অর্ধেকের বেশি কর্মী যেতে বারণ করা হয়েছে। আগামী ১২ সেপ্টেম্বর থেকে মাঠে চলবে খেলাধুলা।ইরাকে গত শুক্রবার একদিনে রেকর্ডসংখ্যক ৫ হাজার ৩ জন করোনায় আক্রান্ত হন এবং ৭৭ জন মারা যান।অর্থনীতি চাঙ্গা রাখতে শেষ পর্যন্ত বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানগুলো চালুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশটির সরকার। এ পর্যন্ত করোনায় ৭ হাজার ৫৮৯ জন মারা গেছেন ইরাকে।