টাকার লোভে বউ বেচে দিলেন…

টাকার জন্য তিনি নিজের বিয়ে করা বউকে বেচে দিয়েছেন। পুলিশ তাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে। পুলিশ জানিয়েছে, নতুনহাটের হরিজন শেঠ এলাকার বাসিন্দা দীপ হালদার বছর দেড়েক আগে ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের রাজপুত পাড়ার বাসিন্দা টুম্পা হরিজনকে বিয়ে করেন। তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। টুম্পার আত্মীয়দের দাবি,

দীপ বিয়ের কিছু দিনের মধ্যেই টুম্পাকে নতুন সংসার বাঁধার স্বপ্ন দেখিয়ে শিলিগুড়িতে তার দিদির বাড়িতে নিয়ে যায়। তাদের অভিযোগ, পেশায় বার ড্যান্সার দিদির সঙ্গে ছক কষে টাকার লোভে দীপ স্ত্রী টুম্পাকে বিক্রি করে দেয়। টুম্পার আত্মীয়দের আরও অভিযোগ, বিগত দেড় বছরের মধ্যে দীপ বহুবার শ্বশুরবাড়ি থেকে টাকা আদায় করেছে। টাকা না দিলে সে টুম্পার ওপর শারীরিক এবং মানসিক নির্যাতন চালাতো বলেও অভিযোগ। টাকা না দিলে সে

মেয়েকে বিক্রি করে দেওয়ার হুমকি দিয়েছিল বলে দাবি টুম্পার বাড়ির লোকজনের।টুম্পার আত্মীয়দের বক্তব্য, শুক্রতবার টুম্পাকে ছাড়াই বাড়ি ফেরে দীপ। এর পরই শুরু হয় তার খোঁজ। শিলিগুড়িতে দীপের দিদির বাড়িতেও যান টুম্পার আত্মীয়রা। কিন্তু সেখানেও তার কোনও খোঁজ মেলেনি। এর পর শান্তিপুরে দীপের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। সূত্র: আনন্দবাজার

আরও পড়ুন=করোনাবিষয়ক জাতীয় পরামর্শক কমিটি বলেছে, ছাত্রছাত্রীরা ভ্যাকসিন না পেলে বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজ খোলা কঠিন হবে। কমিটি ১৮ বছরের বেশি শিক্ষার্থীদের ভ্যাকসিন দেয়ার সম্ভাব্যতা যাচাই করার পরামর্শ দিয়েছে। রোববার রাতে কমিটির পক্ষ থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এর আগে জাতীয় পরামর্শক কমিটির ২২তম সভায় এ বিষয়ে মতামত জানিয়ে বেশ কিছু সুপারিশ করা হয়। কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ সহিদুল্লাহ এতে সভাপতিত্ব করেন।রুসংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সরকার ইতিমধ্যে অক্সফোর্ড এবং অ্যাস্ট্রাজেনিকার তিন কোটি ডোজ ভ্যাকসিন কেনার জন্য ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউট ও বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালের মধ্যে ত্রিপক্ষীয় চুক্তি করেছে। এ জন্য সরকার অর্থও বরাদ্দ করেছে।