জমি দেয়ার কথা বলে টানা ৮ মাস ধরে হি’জড়া’কে ধ.র্ষ”ণ!

বরিশালে এক হি’জড়াকে টানা ৮ মাস ধ.র্ষ”ণে’র অ’ভিযোগে দা’য়ের হওয়া মা’মলায় এক আইনজীবীকে কা’রাগারে পা’ঠিয়েছেন আ’দালত। রোববার দুপুরে বরিশালের অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আ’দালতের বিচারক মো. মারুফ আহমেদ অ’ভিযু’ক্তের জা-মিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে কা’রাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।জানা গেছে, অভিযুক্ত শামসুল হক বরিশাল জেলা আই-নজীবী সমিতির সদস্য এবং নগরীর ২১ নম্বর ওয়ার্ডের গোরস্থান রোডের বাসিন্দা। অপরদিকে মাম-লার বাদী ওই হি-জড়ার বাড়ি সদর উপজেলার চরমোনাই ইউনিয়নের রাজারচর গ্রামে। বর্তমানে তিনি নগরীর কাউনিয়ায় বসবাস করেন।

কোতোয়ালি মডেল থা’না পুলিশের ওসি মো. নুরুল ইসলাম বলেন, শনিবার রাতে কয়েকজন হি’জড়া থা’নায় হা’জির হয়ে জানান, তাদের একজনকে আট মাস ধরে ধ.র্ষ”ণ করা হচ্ছে। তারা অভি’যুক্ত ব্যক্তির শা’স্তি দাবি করেন এবং লিখিত অভি’যোগ দেন। এরপর অভি’যোগটি মা’মলা হিসেবে রেকর্ড করা হয়। মা’মলার তদ’ন্তের দায়িত্ব দেয়া হয় থা’নার এসআই ফজলুল হককে।

মাম’লার ত’দন্ত কর্মকর্তা এসআই ফজলুল হক জানান, আইনজীবী শামসুল হক নগরীর কাশিপুর এলাকার কয়েক শতাংশ জমি বিক্রির জন্য সাইনবোর্ড টানান। ওই সাইনবোর্ডে আইনজীবী শামসুল হকের মু’ঠোফোন নম্বর দেয়া ছিল। ওই ব্যক্তি আট মাস আগে সাইনবোর্ডে দেয়া মুঠোফোন নম্বরে কল দিলে তাকে নগরীর ২১ নম্বর ওয়ার্ডের গো’রস্থান রোডের বাসায় যেতে বলেন শামসুল হক।

এরপর শামসুল হক ওই হি’জড়ার কাছে জমি কম দামে বিক্রির কথা বলে আট মাসে একা’ধিকবার ধ.র্ষ”ণ ক’রেন। এছাড়া আইনজীবী শামসুল হকের অ’নৈতিক ক’র্মকা’ণ্ডের ভিডিও কৌশলে মুঠোফোনে ধারণ করেন বলে মা’মলার এ’জাহারে উল্লেখ করেছেন ওই হি’জড়া।এসআই ফজলুল হক আরো বলেন, শনিবার রাত সাড়ে

৩টার দিকে অভি’যান চালিয়ে আইনজীবী শামসুল হককে গ্রে’ফতার করা হয়। রোববার দুপুরে তাকে অত’রিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পা’ঠানো হয়। আদালত আইনজীবী শামসুল হকের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কা’রাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। অপরদিকে ওই হি’জড়াকে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য দুপুরে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বরিশাল জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট আফজালুল করিম বলেন, অ্যাডভোকেট শামসুল হক সমিতির সিনিয়র সদস্য। তিনি দীর্ঘদিন ধরে নানা জ-টিল রোগে ভুগছেন। শুনেছি তার সঙ্গে জমি নিয়ে কয়েকজন ব্যক্তির বি-রোধ রয়েছে। জমি নিয়ে বি-রোধ থেকেই তার বি-রু-দ্ধে এসব অভি-যোগ আনা হচ্ছে কি-না তা ত-দন্ত করলে সত্যতা বেরিয়ে আসবে।