ঘুমের মধ্যে কামড়ে দিল সাপ, মা-মেয়ের মৃত্যু

নওগাঁর পোরশায় সাপের কামড়ে মা-মেয়ের মৃত্যু হয়েছে। বুধবার (২৯ জুলাই) সকাল ৯টার দিকে পোরশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পথে তাদের মৃত্যু হয়।নিহতরা হলেন- উপজেলার নিতপুর ইউনিয়নের তলাগানইর খন্দকারপাড়া গ্রামের মোজাহরুল ইসলামের স্ত্রী নাজরিন বেগম (২৫) ও মেয়ে সোনালী পাখি (৩)। এর আগে মঙ্গলবার (২৮ জুলাই) রাত ১টার দিকে শোয়ার ঘরে ঘুমের মধ্যে তাদের সাপ কামড় দেয়।

নিতপুর ইউনিয়নের স্থানীয় ইউপি সদস্য সাইদুর রহমান বলেন, প্রতিদিনের মতো রাতের খাওয়া শেষ করে তারা শোয়ার ঘরে ঘুমিয়ে পড়েন। ঘুমিয়ে থাকা অবস্থায় রাত ১টার দিকে বিষাক্ত একটি সাপ মা-মেয়েকে কামড় দেয়। এ সময় তারা চিৎকার শুরু করে। পরে পরিবারের সদস্যরা ছুটে এসে তাদের পায়ে সাপে কামড়ানোর চিহ্ন দেখতে পান। এরপর রাতেই তারা স্থানীয় ওঝা দিয়ে ঝাড়ফুঁক করান।

তবে অবস্থার অবনতি হওয়া বুধবার সকাল ৯টার দিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পথে মা-মেয়ের মৃত্যু হয়।পোরশা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিউল আজম সাপের কামড়ে মা-মেয়ের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন।

আরো পড়ুন…বিদেশি শ্রমিকদের কাজের জন্য মাত্র তিনটি সেক্টর খোলা রাখছে মালয়েশিয়া। এখন থেকে শুধু নির্মাণ কাজ, কৃষিকাজ এবং বৃক্ষায়ণ বা বাগানের কাজে বিদেশি শ্রমিকদের নিয়োগ করবে তারা। বাকি যেসব কাজ থাকবে, তাতে কাজ করবেন মালয়েশিয়ানরাই। করোনা ভাইরাস সংক্রমণ অন্য দেশের মতো মালয়েশিয়ায়ও অর্থনীতির মারাত্মক ক্ষতি করেছে।

এ ছাড়া মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডারের (এমসিও) ফলেও অর্থনীতি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সেই ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে সরকার এমন সিদ্ধান্ত নিচ্ছে। এ খবর দিয়েছে মালয়েশিয়ার অনলাইন মালয় মেইল। বুধবার দেশটির পার্লামেন্ট দেওয়ান রাকায়েতে এ তথ্য দিয়েছেন মানবসম্পদ বিষয়ক উপমন্ত্রী আওয়াঙ্গ সোলাহুদিন।তিনি পার্লামেন্টে বলেছেন, শুধু নির্মাণ খাত, কৃষি খাত এবং প্লান্টেশন খাতে বিদেশি শ্রমিকদের নিয়োগ করা যাবে। অন্য যেসব সেক্টর আছে তা স্থানীয় শ্রমিকদের দিয়ে পূরণ করতে হবে। বিদেশি শ্রমিক কমিয়ে আনার গাইডলাইন অনুসারে এটা করা হবে।