আবাসিক হোটেল থেকে প্রধান শিক্ষকের মরদেহ উদ্ধার

ঢাকার একটি আবাসিক হোটেল থেকে মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার শিক্ষক মনীন্দ্রনাথ বাড়ৈর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তিনি রাজৈর পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। পরে মরদেহ ময়নাদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়। বৃহস্পতিবার (২১ সে‌প্টেম্বর) রাত ৮টার দিকে তোপখানা রোডের ‘হোটেল রয়েল গ্রান্ড হায়াত’ নামে ওই হোটেলের কক্ষ থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে শাহবাগ থানা পুলিশ। তার স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে।

এদিকে পুলিশ ও পরিবার সূত্রে জানা গেছে, স্কুল ক্যাম্পাসের একটি কোয়ার্টরে পরিবার নিয়ে বসবাস করতেন ওই শিক্ষক। বৃহস্পতিবার সকালে স্কুলের প্রয়োজনীয় কাজের কথা বলে তিনি ঢাকায় যান। দুপুরের পর থেকেই তার স্ত্রী ওই শিক্ষকের ব্যবহৃত মোবাইল নম্বরে কল করলে তা বন্ধ পান। এরপর ওই দিন রাত ৮টার দিকে থানা পুলিশের মাধ্যমে পরিবারের লোকজন জানতে পারেন হোটেল রয়েল গ্রান্ড হায়াত থেকে মনীন্দ্রনাথ বাড়ৈর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

মরদেহ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করে রাজৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসেন বলেন, রাত ৮টার দিকে শাহবাগ থানা থেকে ওই প্রধান শিক্ষকের মরদেহ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়। তবে তার মৃত্যুর প্রকৃত কারণ এখনও জানা যায়নি।