‘বিষপ্রয়োগে’ মারা হলো শত শত হাঁস, মূর্ছা যাচ্ছেন কৃষি উদ্যোক্তা

সাভারে পূর্ব-শত্রুতার জের ধরে একটি হাঁসের খামারে খাবারে বিষ প্রয়োগে এক হাজার ২০০টির বেশি হাঁস মেরে ফেলা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনা সহ্য করতে না পেরে বারবার মূর্ছা যাচ্ছেন কৃষি উদ্যোক্তা গোলাম সারোয়ার। আজ সোমবার সকালে ঘুম থেকে উঠে সারি সারি মৃত হাঁস দেখে চমকে ওঠেন সাভারের আশুলিয়া থানাধীন মনোহর গ্রামের বাসিন্দারা।

স্থানীয়রা জানান, পাথালিয়া ইউনিয়নের মনোহর গ্রামের সরোয়ার হোসেন একসময় তৈরি পোশাক কারখানায় কাজ করতেন। ২০ লাখ টাকা ব্যয়ে তিন গড়ে তোলেন ফাতান ফার্ম হাউস নামের হাঁসের খামার।সারোয়ার হোসেনের অভিযোগ, জমি নিয়ে প্রতিবেশী মিল্টনের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরেই তাঁর বিরোধ চলছিল। নানাভাবে মিল্টন তাঁকে হুমকি-ধমকি দিয়ে আসছিলেন। বিষয়টি মীমাংসার জন্য তিনি স্থানীয় প্রভাবশালীদের দ্বারস্থ হলেও মিল্টন এসে তাঁকে জানিয়েছিলেন, আর কারও কাছে যেতে হবে না, নিজেরা বসেই বিরোধ মীমাংসা করবেন। এর মধ্যেই আজ সোমবার সকালে ঘুম থেকে উঠে শতশত মৃত হাঁস দেখে মুষড়ে পড়েন সারোয়ার ও তাঁর পরিবারের সদস্যরা।

এদিকে, এ ঘটনার পর থেকেই অভিযুক্ত মিল্টনের খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না।সারোয়ারের স্ত্রী জানান, হাঁসগুলো ডিম পাড়া শুরু করেছিল। ডিম বিক্রি করে ধার-দেনা শোধের মাধ্যমে নিজেদের ভাগ্য পরিবর্তনের স্বপ্ন দেখেছিলেন তাঁরা। ‘মানুষ কেমনে এত অমানুষ হয়’—বলে বিলাপ করছিলেন তিনি।

পাথালিয়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান পারভেজ দেওয়ান জানান, হাঁসগুলোর খাবারে বিষ মিশিয়ে দেওয়ায় এই ঘটনা ঘটেছে।দুই হাজার হাঁসের মধ্যে এক হাজার ২০০টি হাঁস মারা যাওয়ার পাশাপাশি বাকিগুলোও অসুস্থ হয়ে পড়ে ক্রমেই মৃত্যুর মুখে ঢলে পড়ছে। অন্যগুলোও ছটফট করছে মৃত্যু যন্ত্রনায়।

আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম কামরুজ্জামান জানান, বিষয়টি কেবল অমানবিকই নয়, বেদনাদায়ক। এখন পর্যন্ত এ বিষয়ে থানায় কোনো অভিযোগ আসেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *